সিলেট ১৩ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৭ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

জো বাইডেন নির্বাচনি লড়াই চালিয়ে যাবেন , ট্রাম্পকে হারানোর অঙ্গীকার

admin
প্রকাশিত জুলাই ৬, ২০২৪, ১২:১২ অপরাহ্ণ
জো বাইডেন নির্বাচনি লড়াই চালিয়ে যাবেন , ট্রাম্পকে হারানোর অঙ্গীকার

আওয়াজ ডেক্স :যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তার পুন:নির্বাচিত হওয়ার লড়াইয়ে থাকা এবং ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হারানোর জোরালো অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন। তিনি নির্বাচনের দৌড় থেকে সরে যাচ্ছেন কী না এমন গুঞ্জন অব্যাহত থাকার মধ্যেই শুক্রবার এমন বক্তব্য দিয়েছেন।

উইসকনসিনের ম্যাডিসনে এক সমাবেশে ৮১ বছর বয়স্ক এই নেতা সিএনএন এর প্রেসিডেন্সিয়াল বিতর্কে তার বিপর্যয়কর পারফরমেন্সের বিষয়টিও স্বীকার করেন।

“এরপর থেকে অনেক জল্পনা কল্পনা । জো কী করতে যাচ্ছে,” তিনি সমাবেশে বলছিলেন।

“আমার উত্তর হলো এই – আমি লড়ছি এবং আবারো জয়ী হতে যাচ্ছি,” মি. বাইডেন বলছিলেন। এ সময় সমর্থকরা তার নাম ধরে উল্লাস করেন।

এটা নির্বাচনী লড়াই চালিয়ে যেতে তার সর্বশেষ অঙ্গীকার এবং এর মাধ্যমে তিনি ক্রমশ জমাট বেঁধে ওঠা একটি রাজনৈতিক সংকটকে নিরসনের চেষ্টা করছেন।

সতের মিনিটের বক্তৃতা, যেখানে তিনি ছিলেন বিতর্কের মঞ্চের চেয়ে অনেক বেশি সক্রিয়, এমন সময় হলো যখন তার প্রচারের জন্য একটি কঠিন সময়। কারণ কিছু ডোনার ও ডেমোক্র্যাট সহযোগীরা বিবেচনা করছেন যে তার লড়াইয়ে থাকা উচিত কি-না।

যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী তার প্রচার দল সচেতন যে আগামী কয়েকদিন মি. বাইডেনের পুন:নির্বাচন লড়াই দৃঢ় হবে কিংবা ভেঙ্গে যাবে।

রিপাবলিকান প্রার্থী সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাথে বিতর্কের পর তিনি যে সমর্থন হারিয়েছিলেন সেটিকে পুনরুদ্ধারের চেষ্টা করছেন তিনি।

ম্যাডিসনে তার বক্তব্যের পর এবিসি নিউজের সাথে তার একটি সাক্ষাতকার প্রচারের কথা যেটি তার অঙ্গীকার ও ফিটনেস নিয়ে যারা প্রশ্ন তুলছেন তারা গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করবেন।

মি. বাইডেন যখন সমাবেশের মঞ্চে উঠছিলেন তখন তিনি একজন ভোটারের পাশ কাটিয়ে যান যার হাতে একটি সাইন ছিলো এমন ‘পাস দ্যা টর্চ, জো’ অর্থাৎ ‘টর্চটা আরেকজনকে দাও, জো’। আরেকজন ভোট ভেন্যুর বাইরে বহন করছিলেন একটি লেখা ‘নিজের সুনাম রক্ষা করো, বিদায় নাও’।

“আমি এসব গল্প দেখছি যাতে বলা হচ্ছে আমি খুবই বয়স্ক,” বলছিলেন মি. বাইডেন। এরপর তিনি হোয়াইট হাউজে তার অর্জনের বর্ণনা দেন। “দেড় কোটি চাকরির সুযোগ তৈরির জন্য আমি কী খুব বয়স্ক ছিলাম,” বলছিলেন তিনি।

“আমি কী ৫০ লাখ আমেরিকানের জন্য শিক্ষার্থী ঋণ মওকুফের জন্য খুবই বয়স্ক ছিলাম?”

“আপনার কী মনে করেন ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হারাতে আমি খুবই বয়স্ক?” তিনি জানতে চান। এ সময় সমবেত জনতা ‘না’ বলে জবাব দেয়।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের ফৌজদারি অপরাধে অভিযুক্ত হওয়া এবং অন্য মামলাগুলোতে তিনি যেসব অভিযোগ মোকাবেলা করছেন সেগুলোর প্রসঙ্গ টেনে মি. বাইডেন তার প্রতিদ্বন্দ্বী সম্পর্কে বলেন ‘এক-ব্যক্তির অপরাধ তরঙ্গ’।

প্রেসিডেন্সিয়াল বিতর্কের পর মি. বাইডেনের ওপর সরে দাঁড়ানোর জন্য চাপ বাড়ছে। অনেকগুলো ঘটনার কথা বলা হচ্ছে যেখানে তিনি চিন্তার খেই হারিয়েছিলেন, যা তার বয়স ও মানসিক সুস্থতা সম্পর্কে উদ্বেগ বাড়িয়েছে।ডেমোক্র্যাটিক পার্টির কয়েকজন ডোনার দলের প্রার্থী হিসেবে মি. বাইডেনকে সরে দাঁড়াতে চাপ দিচ্ছেন। তারা প্রকাশ্যেই সতর্ক করে বলেছেন প্রার্থী পরিবর্তন না হলে তারা তহবিল প্রত্যাহার করে নেবেন।

For more information

আরো দেখুন|

Summary
জো বাইডেন নির্বাচনি লড়াই চালিয়ে যাবেন , ট্রাম্পকে হারানোর অঙ্গীকার
Article Name
জো বাইডেন নির্বাচনি লড়াই চালিয়ে যাবেন , ট্রাম্পকে হারানোর অঙ্গীকার
Description
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তার পুন:নির্বাচিত হওয়ার লড়াইয়ে থাকা এবং ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হারানোর জোরালো অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন। তিনি নির্বাচনের দৌড় থেকে সরে যাচ্ছেন...