সিলেট ২৪শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

সিলেট জেলা প্রেসক্লাবে সাংবাদিক ছামির মাহমুদ সংবর্ধিত

Stuff
প্রকাশিত ডিসেম্বর ১৩, ২০২৩, ০১:২৮ পূর্বাহ্ণ
সিলেট জেলা প্রেসক্লাবে সাংবাদিক ছামির মাহমুদ সংবর্ধিত

আওয়াজ ডেস্ক:: যারা প্রকৃত কাজের লোক তারা দূরে গেলেও হারিয়ে যান না। ছামির মাহমুদও এমনই একজন প্রকৃত কাজের লোক। তিনি তার মেধা ও প্রতিভা দিয়ে দেশ, সমাজ ও গণমানুষের কলাণে কাজ নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন।

সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ছামির মাহমুদের সপরিবারে যুক্তরাজ্যযাত্রা উপলক্ষ্যে দেওয়া সংবর্ধনা সভায় বক্তারা এ কথা বলেন।

মঙ্গলবার বিকেল ৪টায় ক্লাব মিলনায়তনে সাংবাদিক ছামির মাহমুদকে এ সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সহসভাপতি সাঈদ চৌধুরী টিপুর সভাপতিত্বে ও সহ সাধারণ সম্পাদর রবি কিরণ সিংহের পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আল আজাদ, সাধারণ সম্পাদক শাহ দিদার আলম নবেল, কোষাধ্যক্ষ আনন্দ সরকার, মুক্তিযুদ্ধ পাঠাগার সিলেটের সভাপতি শেখ নূরুল ইসলাম জেলা প্রেসক্লাবের ক্রীড়া ও সংস্কুতি সম্পাদক মিঠু দাস জয়, নির্বাহী সদস্য রনজিৎ কুমার সিংহ। সভায় বক্তারা সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের অগ্রযাত্রায় সাবেক সাধারণ সম্পাদক ছামির মাহমুদের অবদানের কথা কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করেন।

ক্লাব সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন- সিনিয়র সদস্য মোহাম্মদ মহসীন, ইয়াহ্ইয়া মারুফ, বাপ্পা মৈত্র, জিকরুল ইসলাম, ফয়জুল আহমদ, নবীন সোহেল, মিজান মোহাম্মদ।

অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে ছামির মাহমুদ বলেন, জীবন জীবিকার প্রয়োজনে তাকে হয়তো দেশ ছেড়ে চলে যেতে হচ্ছে কিন্ত তার মন সব সময় এএ দেশেই পড়ে থাকব্ েনিজের আগের যুক্তরাজ্য সফরের অভিজ্ঞতা তুলে ধরে বলেন, আমি দেখেছি প্রবাসে যারা থাকেন দেশকে তার আরও বেশি করে নিজের মধ্যে ধারণ করেন। সে অভিজ্ঞতা থেকেই তিনি মনে করেন দেশ ছেড়ে দূরে গেলেও দেশের সাথে তার সম্পর্কের বাঁধন কখনওই আলগা হবে না। সিলেট জেলা প্রেসক্লাবকে নিজের দ্বিতীয় ঘর হিসেবে উল্লেখ করে সংগঠনটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক বলেন,   প্রবাসে থেকেও আমি এ ক্লাবের অংশ হয়েই কাজ করব। ক্লাবের অগ্রযাত্রায় নিজেকে যথাসাধ্যভাবে জড়িয়ে রাখব।

সংবর্ধনা সভায় বক্তারা আরও বলেন, ছামির মাহমুদের যুক্তরাজ্যযাত্রার ফলে সিলেটের সংবাদজগত একজন সৎ ও সাহসী সাংবাদিকের অভাব অনুভব করবে। তারা আশাপ্রকাশ করেন যুক্তরাজ্য গেলেও ছামির মাহমুদের সাথে সিলেট জেলা প্রেসক্লাব ও সাংবাদিকদের সম্পর্ক অব্যাহত থাকবে। তারা আশা করেন, প্রবাসজীবনে নিজের কর্মব্যস্ততার ফাঁকেও ছামির মাহমুদ সাংবাদিকতার সাথে নিজেকে জড়িয়ে রাখবেন।