সিলেট ১৩ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৭ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

জৈন্তাপুরের প্রতিবন্ধী রুবেল বাস্তব জীবনের খলনায়ক

Stuff
প্রকাশিত নভেম্বর ১০, ২০২৩, ০৯:২৯ অপরাহ্ণ
জৈন্তাপুরের প্রতিবন্ধী রুবেল বাস্তব জীবনের খলনায়ক

আওয়াজ ডেস্ক:: চোরাকারবারী, মাদক ব্যবসা, টিলা কেটে অবৈধভাবে পাথর উত্তোলনসহ বিভিন্ন অপকর্মের সাথে সরাসরি জড়িত রয়েছে রুবেল। এছাড়াও এলাকার সাধারণ মানুষকে মামলায় ঢুকিয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে বিভিন্নভাবে হয়রানী করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এই প্রতিবন্ধী রুবেল জৈন্তাপুর উপজেলায় সরকার বিরোধী আন্দোলনে বিভিন্ন ধ্বংসাত্মক কার্যকলাপের সাথে জড়িত বলেও অভিযোগ রয়েছে।

জৈন্তাপুর উপজেলার রূপচেং গ্রামের আব্দুল মন্নানের ছেলে প্রতিবন্ধী রুবেল আহমদ বর্তমানে সীমান্তবর্তী গোয়াবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা। মুজিব বর্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পাওয়া একটি বাড়িতে বাস করেন রুবেল। প্রতিবন্ধী হিসেবে সবাই তাকে মায়ার চোখে দেখেন। সে সুযোগ নিয়ে রুবেল নিজেকে পুলিশের উর্ধতন একজন কর্মকর্তার সোর্স পরিচয় দিয়ে এলাকাবাসীকে বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করে যাচ্ছে। সে সীমান্ত এলাকায় একটি মাদক চোরাচালান চক্রের সক্রিয় সদস্য।

গোয়াবাড়ী এলাকায় টিলা কেটে পাথর উত্তোলনকারীদের অন্যতম হোতা রুবেল। সে এলাকার জনগণকে  বিভিন্ন মামলায় ঢুকানোর হুমকি দিয়ে সাধারণ মানুষকে ব্ল্যাক মেইল করছে। রুবেল সীমান্ত এলাকায় একটি চোরাকারবারী চক্রের সোর্স হিসেবেও কাজ করেন বলে জানা যায়।

প্রতিবন্ধী হিসেবে কেউ থাকে সন্দেহ করেনা সে সুযোগ নিয়ে রুবেল আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অবস্থান বা অভিযানের খবর দ্রুত চোরাকারবারীদের কাছে পৌঁছে দেয় বলে অভিযোগ রয়েছে।

উপজেলার নিজপাট ইউনিয়ন যুবদলের দপ্তর সম্পাদক  রুবেল প্রতিবন্ধীতার সুযোগ নিয়ে সরকার বিরোধী কার্যক্রমে তৎপর হয়ে ওঠে। সে ঢাকা, সিলেট সহ সকল জায়গায় বিএনপির কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে বিশৃংখলা সৃষ্টি করে। বিএনপি ঘোষিত সড়ক অবরোধ, হরতালের সময় গাড়ি ভাংচুর সহ বিশৃংখলা সৃষ্টিতে নেতৃত্ব দিচ্ছেন এই রুবেল।

নাম প্রকাশে অনিচ্চুক একজন এলাকাবাসী জানান রুবেল প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘরবাড়ি পেয়েছে, সরকার থেকে প্রতিবন্ধী ভাতা পায়, তারপরও সরকার বিরোধী তৎপরতায় ব্যস্ত থাকে।

এলাকার লোকজন  প্রতিবন্ধী ভেবে কেউ তার এসব অপকর্মের প্রতিবাদ করেন না। অভিলম্বে তাকে আইনের আওতায় আনার জন্য এলাকাবাসী দাবি জানান।

সূত্র: সিলেট প্রতিদিন